সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করলেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান পার্থিব প্যাটেল। বুধবার টুইটারে নিজের অবসরের সিদ্ধান্ত জানান তিনি।

 

কনিষ্ঠতম উইকেটরক্ষক হিসেবে টেস্ট অভিষেকের ১৮ বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করলেন পার্থিব প্যাটেল।

 

একটাও রঞ্জি ম্যাচ না খেলে ২০০২ সালে ট্রেন্ট ব্রিজে ব্রিটিশ পেসারদের সামনে প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেন ১৭ বছর ১৫৩ দিনের পার্থিব প্যাটেল।

 

সেদিনই ক্রিকেট ইতিহাসে লেখা হয়েছিল তাঁর নাম। কনিষ্ঠতম উইকেটরক্ষক হিসেবে টেস্ট অভিষেকের জন্য। পাকিস্তানের হানিফ মহম্মদের রেকর্ড ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে।

 

 

২০০২ সালে অভিষেক হলেও নিয়মিত খেলেছেন মাত্র দু’বছর। ২০০৪ সাল থেকে অনিয়মিত হয়ে পড়েন জাতীয় দলে। গোটা ক্রিকেট কেরিয়ারে মোট ২৫টি টেস্ট ম্যাচ এবং ৩৯টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন পার্থিব প্যাটেল।

 

খেলেছেন মাত্র ২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। টেস্টে করেছেন ৯৩৪ রান। ওয়ান ডে তে পার্থিবের রান ৭৩৬ আর দুটি টি-টোয়েন্টিতে সংগ্রহ মাত্র ৩৬ রান।ভারতীয় দলের জার্সি গায়ে শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন ২০১৮ সালে জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে।

 

 

এদিন টুইটারে পার্থিব লিখেছেন, “আজ এই দিনেই আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করছি। আমার এই ক্রিকেট সফরে সবসময়ের জন্য বাবার সমর্থন পেয়েছি।

 

 

যে কোনও সমস্যায় আমার পাশে দাঁড়িয়েছেন। ১৮ বছরের লম্বা ক্রিকেট জীবন আজ এই মুহূর্ত থেকেই শেষ হয়ে যাচ্ছে। আমার ক্রিকেট জীবনে বহু মানুষের অবদান রয়েছে সবাইকে ধন্যবাদ।”

পাশাপাশি তিনি আরও লিখেছেন “১৭ বছরের ছেলেটা যে ভারতীয় দলের হয়ে খেলতে এসেছিল, তার পাশে দাঁড়িয়েছিল বিসিসিআই। কম বয়সে ভারতীয় দলে অভিষেকে বহু মানুষ আমাকে সাহায্য করেছেন।

 

প্রত্যেক অধিনায়ক যাঁদের নেতৃত্বে আমি খেলেছিলাম তাঁদের সকলকে ধন্যবাদ। বিশেষ করে দাদা, আমার অভিষেক ম্যাচের অধিনায়ক ছিলেন। আমার ওপর আস্থা রেখেছিলেন তিনি। সতীর্থ , সিনিয়র সবার কাছ থেকেই দীর্ঘ এই ক্রিকেট জীবনে অনেক কিছু শিখেছি। সকলকে অনেক ধন্যবাদ।

By imran

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *