কথায় আছে প্রতিটি মানুষের মধ্যেই ঈশ্বর বিরাজমান। আর এই কথাটি প্রতিবার প্রমাণিত হয়েছে বলিউডের অভিনেতা সোনু সূদের ক্ষেত্রে। তিনি গত বছর ২০২০ সালে করোনা পরিস্থিতিকালীন লকডাউন চলাকালীন পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশাপাশি দরিদ্র মানুষগুলির দিকে নিজের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন আর তাই অভিনেতা ওই মানুষগুলির কাছে হয়ে উঠেছে ঈশ্বর স্বরূপ। তবে এরপর ও থেমে থাকেননি অভিনেতা। ক্রমাগত তার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন কখনো পরিযায়ী শ্রমিকদের দিকে তো কখনো বহু অসহায় পড়ুয়াদের দিকে। যাদের পড়াশোনার ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও অর্থনৈতিক কারণবশত পড়াশোনার সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হতে হয় তাদের। আর এদের কাছেই সঠিক সময়ে ‘সুপারম‍্যান’এর মত সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেব সোনু।

আর এবার আরো একবার ঈশ্বর রূপে সাহায্য করতে পৌঁছে গেলেন, আহমেদ নামে এক ছোট্ট শিশুর কাছে। এই বাচ্চাটির হার্টে ফুটো রয়েছে আর তার পরিবারের লোক এর চিকিৎসা করার সামর্থ নেই, তাই সোনু ঝাঁসির নন্দনপুরার বাসিন্দা ছোট্ট আহমেদের হার্টের চিকিৎসার যাবতীয় খরচা বাবদ তাকে সম্পূর্ণ সুস্থ করে তোলার সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিজের কাঁধেই তুলে নিলেন অভিনেতা। অর্থনৈতিক দিক থেকে দুর্বল হওয়ার কারণে তার পিতা মাতা তার হার্টের চিকিৎসা করাতে পারছিলেন না তার সেখানেই ভগবানের অবতারে পৌঁছে গেলেন অভিনেতা। আর তাই ৪ ঠা এপ্রিল থেকে মুম্বই শহরে শুরু হয়ে গিয়েছে শিশুটির চিকিৎসা। বাচ্চাটির চিকিৎসার জন্য শিশুটি সহ তার বাবা মা সকলেই এখন মুম্বইতে সোনুর ডাকে সাড়া দিয়ে বর্তমানে ওখানেই আছেন।

এই বছর অভিনেতা শিবরাত্রির দিন তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলের উদ্দেশে লিখেছিলেন যে, শিবের ছবি পোস্ট না করে মানবসেবা করুন। আর এই জন্য অভিনেতাকে ট্রোলিং সম্মুখীন হতে হয়েছিলো। তার এই টুইটকে কেন্দ্র করে নেটিজেনরা ক্ষুব্ধ হয়ে গিয়েছিলেন, এবং কমেন্টস করে বললেন , “নিজের ছবির মুক্তির আগেও এমন কথা বলবেন তো?” তাহলে ছবির টিকিট কেনার বদলে সেই টাকায় গরিবকে খাওয়ার কিনে দিন,। আবার অনেকে এও বললেন যে, “মনুষ‍্যত্বের কোনো ধর্ম হয় না, কিন্তু আপনি সেখানেই বিভেদ করার চেষ্টা করছেন, আর শিবরাত্রি উপলক্ষে আপনি এমন উপদেশ দিচ্ছেন, তাহলে ইদ বা বড়দিনে দেন না কেন? আপনি যে বিভেদ করার চেষ্টা করছেন তা আপনি নিজেই প্রমাণ করে দিলেন।”

আসলে অভিনেতা সোনু, সম্প্রতি কিছুদিন আগে শিবরাত্রির উপলক্ষে, অসহায় মানুষের সাহায্যের অনুরোধ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, ভগবান শিবের ফটো না পাঠিয়ে অসহায় মানুষদের সাহায‍্য করে শিবরাত্রি পালন করার চেষ্টা করুন সকলে। আর মহা শিবরাত্রির দিন তার লেখা এই পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হওয়ার পর অভিনেতাকে তীব্র সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয়েছিল এবং পোস্টটি তুমুল উত্তেজনা সৃষ্টি করে ভাইরাল হয়ে গিয়েছিলো নেট দুনিয়ায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *