জিজ্ঞাসাবাদ চলছে রিয়া চক্রবর্তীর। এনসিবি-র দফতরে রোববার সকালে ১১টার দিকে পুলি’শি প্রহরায় পৌঁছে গিয়েছেন রিয়া। মাদ’ককা’ণ্ডে ভাই শৌভিকের পর আজই তাকে গ্রে’ফতার করা হবে কি না, তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা। রিয়া কি আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেছেন?

রিয়ার আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে এ দিন সংবাদ সংস্থাকে বলেন, বিহার পুলিশ থেকে শুরু করে সিবিআই, ইডি এবং এনসিবি কোনো ক্ষেত্রেই রিয়া কোনো আ’দালতে আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেননি। পাশপাশি সতীশ যোগ করেন, কাউকে ভালবাসা যদি অপ’রাধ হয় তবে তার মূল্য দিতে প্রস্তুত রিয়া। প্রস্তুত গ্রে’ফতার হতেও।

আজ এনসিবি’র দফতরে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গেই ছবি শিকারিরা ছেঁকে ধরেন রিয়াকে। এর আগে মুম্বাই পুলিশের কাছে তার এবং পরিবারের জন্য নিরাপত্তা চেয়েছিলেন রিয়া। সেই মতোই মুম্বাই পুলিশের নিরাপ’ত্তার ঘেরাটোপে এত দিন সিবিআই, ইডি-র দফতরে হাজিরা দিচ্ছিলেন রিয়া।

দিন কয়েক আগে রিয়ার সঙ্গে তার ভাই এবং স্যামুয়েলের মা’দক সংক্রা’ন্ত চ্যাট প্রকাশ্যে আসে। তাতে দেখা যায়, ভাই এবং স্যামুয়েলকে গাঁজার গুণ’মান এবং জোগান নিয়ে প্রশ্ন করেছেন রিয়া।

বিশেষ সূত্রে খবর, জেরায় রিয়ার হয়ে মাদ’ক কেনার কথা স্বীকার করেছেন ভাই শৌভিকও। আপাতত এই মাসের ৯ তারিখ পর্যন্ত শৌভিক এবং স্যামুয়েল এনসিবি হেফা’জতে থাকবেন। এনসিবি সূত্রে জানা যাচ্ছে, আজই মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হবে ভাই-বোনকে।

By talha

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *