আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে যদি শ্রীলঙ্কা সিরিজ না থাকতো অথবা আইপিএল যদি সঠিক সময়ে (এপ্রিল মাসে) অনুষ্ঠিত হতো তাহলে আইপিএলের এবারের আসরে দেখা যেত মোস্তাফিজুর রহমানকে।

আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএল এর ১৩ তম আসর। এই আসরে খেলার জন্য প্রস্তাব পেয়েছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ফাস্ট বোলার মুস্তাফিজুর রহমান।

আইপিএলের ১৩তম আসরে নিলামে অবিক্রীত ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। নিলামে দল না পেলেও গত মার্চে মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করেছিল রাজস্থান রয়েলস। কিন্তু করোণা ভাইরাসের কারণে সেই চুক্তি স্থগিত হয়ে যায়।

তবে কিছুদিন আগে কাটার মাস্টারকে চুক্তিভিত্তিক নিতে চেয়েছিল বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের দল কলকাতা নাইট রাইডার্স ও রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। কিন্তু অফার পেল আইপিএলে খেলা হচ্ছে না মুস্তাফিজুর রহমানের।

আজ সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মুস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, ” আমার এজেন্টের মাধ্যমে কয়েক দিন আগে আইপিএলে খেলার প্রস্তাব এসেছিল। কলকাতা নাইট রাইডার্স আমাকে নিতে চেয়েছিল। কিছুদিন পর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সও প্রস্তাব পাঠায়। নিয়মানুযায়ী বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়।

সামনে শ্রীলংকা সফর থাকায় বিসিবি ওই প্রস্তাব নাকচ করে দেয়। আমার কাছে বাংলাদেশ দল সবার আগে। আমার ভাবনায় এখন শুধুই শ্রীলঙ্কা সফর। সামনে এমন সুযোগ আশা করি আরও আসবে।’

তবে আইপিএলে খেলা হচ্ছে না মুস্তাফিজুর রহমানের। আইপিএল চলাকালীন সময় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশের স্কোয়াড মুস্তাফিজুর রহমানের থাকা নিশ্চিত।

মোস্তাফিজকে অনাপত্তিপত্র না দেয়ার কারণ সম্পর্কে বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বলেন, কিছুদিন আগে তাকে নেয়ার জন্য আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি প্রস্তাব পাঠিয়েছিল। সামনে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ। মোস্তাফিজ আমাদের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। জাতীয় দলের কথা ভেবে তাকে অনাপত্তিপত্র দেয়া হয়নি।

By talha

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *