এর আগে দেখেছি যে সোশ্যাল মিডিয়ার দরুন বিভিন্ন তারকার বলাবাহুল্য অভিনেতা এবং অভিনেত্রী রা তাদের জীবনের ছোটখাট মুহূর্ত তুলে ধরে থাকেন ।

 

এবং মূলত তারা এই ধরনের কাজকর্ম করেন কারণ তারা তাদের জনপ্রিয়তা বাড়িয়ে তুলতে চায় । কারণ সোশ্যাল মিডিয়ার দরুন তারা নিজেদের জনপ্রিয়তা কে বাড়িয়ে তুলতে পারে । আর ঠিক সেই একই পথে হাঁটলেন বাংলার অভিনেত্রী এনা সাহা। ।

 

২৮ সে মে ১৯৯২ সালে তিনি জন্মগ্রহণ করেন । তিনি বেশ কয়েকটি বাংলা টিভি সিরিয়ালে হাজির হয়েছেন,যেমনঃ রাত ভোর বৃষ্টি, বউ কথা ক ও , বাঁধন ,সংসার সুখের হয় রমনীর গুণে,মহাপ্রভু শ্রীচৈতন্যে প্রভৃতি।

 

তিনি বেশ কয়েকটি বাণিজ্যিক ও আর্ট-হাউজ বাংলা চলচ্চিত্র এবং মালয়ালাম চলচ্চিত্রে হাজির হন।

 

তার প্রথম ছবি হল সোমনাথ গুপ্ত পরিচালিত বাংলা চলচ্চিত্র আমি আদু । ওয়ান থার্টি এম ছবিতে তিনি নিশির ভূমিকা পালন করেন। এই চলচ্চিত্রটি বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র উত্সবে সমালোচকদের দ্বারা প্রশংসা পেয়েছিল।

 

২০১৩ সালে, তিনি মালয়ালাম চলচ্চিত্র নিলাকশাম পাচাকাদাল চুভানা ভূমিতে হাজির হন, যেখানে তিনি গৌরী চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।এর পাশাপাশি বোঝেনা সে বোঝেনা ছবির মাধ্যমে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেন ।

 

তবে নিজের অনুগামীদের নজর কিভাবে ধরে রাখতে হয় তা তিনি খুব ভালো মতই জানেন । তাই সোশ্যাল মিডিয়াতে তিনি যথেষ্ট সক্রিয় । এবং শুধুমাত্র যে সক্রিয় এমনটা কিন্তু নয় ।

 

কারণ মাঝে মধ্যেই তিনি এমন এমন ছবি বা ভিডিও শেয়ার করে থাকেন তার অনুগামীদের সাথে যা রীতিমতো ঘুম উড়িয়ে দেয় দুনিয়ার নেটিজেনদের । আর এবার ঠিক সে রকম একটি ঘটনা ঘটল ।

 

 

সম্প্রতি এনা নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলেন বাথটাবে থাকা অবস্থায় ছবি। সেখানে তিনি ক্যাপশন দিয়েছেন ‘রিডিস্কভারিং’। অবশ্য কী ডিস্কভার করার কথা এখানে নায়িকা লিখছেন তা অবশ্য বলেননি।

 

তবে হতে পারে নিজেকেই খুঁজছেন অভিনেত্রী । ছবিটি নিজের ইন্সটাগ্রাম হ্যান্ডেলে পোস্ট করেছেন এনা।

 

মাত্র ২ ঘন্টায় লাইক-কমেন্টের বন্যা ছবিতে। ইতিমধ্যেই সেটি পছন্দ করেছেন প্রায় ১১ হাজার মানুষ। কমেন্ট এসেছে ১০০-এর কাছাকাছি। তাঁর ফ্যানেরা কেউ লিখেছেন ‘স্পিচলেস’, আবার কেউ বলেছেন ‘লুকিং গর্জাস’।

 

সঙ্গে লাভ রিয়াক্ট তো রয়েছেই । মুহুর্তের মধ্যে জনপ্রিয়তা দ্বিগুণ হয়ে যায় এই বাঙালি অভিনেত্রী । তবে আগামী দিনে এরকম ধরনের ছবি বা ভিডিও যে তিনি শেয়ার করবেন এবং তা অনুমান করা যেতেই পারে ।

By imran

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *